ই শ্রম কার্ডে E-KYC করার পদ্ধতি। E-KYC Process for e-Shram Card

 ই শ্রম কার্ড করার পর কিভাবে তোমরা ‘E-KYC’ করবে তা নিয়েই আজকের পোস্ট। e-Sharam কার্ডে E-KYC করার প্রয়োজন, না করলে কি হবে এই সব প্রশ্নের উত্তর রয়েছে এই পোস্টটির মধ্যে।

ই শ্রম কার্ডে E-KYC করার পদ্ধতি। E-KYC Process for e-Shram Card

অসংগঠিত ক্ষেত্রে কর্মরত দেশের কোটি কোটি শ্রমিকদের স্বার্থের কথা মাথায় রেখে, সরকার ই-শ্রম পোর্টাল চালু করেছিল, যেটিতে এখন পর্যন্ত এক কোটিরও বেশি শ্রমিক নিজেদের নিবন্ধন করেছেন। আসলে, ই-শ্রম পোর্টাল হল অসংগঠিত শ্রমিকদের একটি ডাটাবেস। শ্রম ও কর্মসংস্থান মন্ত্রকের মতে, এর লক্ষ্য দেশের সমস্ত অসংগঠিত শ্রমিকদের একটি কেন্দ্রীভূত ডাটাবেস তৈরি করা, যার মধ্যে রয়েছে নির্মাণ শ্রমিক, অভিবাসী শ্রমিক, গিগ এবং প্ল্যাটফর্ম শ্রমিক, হকার, গৃহকর্মী, কৃষি শ্রমিক ইত্যাদি, সংযুক্ত করা। আধার দিয়ে। হয়। এটি অভিবাসী এবং নির্মাণ শ্রমিকদের সামাজিক নিরাপত্তা এবং কল্যাণ সুবিধা প্রদানের লক্ষ্য রাখে। এই ওয়েবসাইটের মাধ্যমে, শ্রমিকরা তাদের কার্ড তৈরি করতে পারবেন এবং সরকার কার্ডধারীদের অনেক সুবিধা প্রদান করবে।

ই শ্রম কার্ডে E-KYC করার প্রয়োজন

  1. আপনি যদি আপনার আধার কার্ডের নাম চেঞ্জ করে থাকেন।
  2. আপনি যদি আধার কার্ডের ঠিকানা পরিবর্তন করে থাকেন।
  3. আপনি যদি আধার কার্ডের ছবি পরিবর্তন করে থাকেন।
  4. আপনি যদি মেয়ে হন। বিয়ের পর গার্ডিয়ান এর নামে আপনার আপনার স্বামীর নাম রাখেন।

এক কথায় আপনি যদি আপনার আধার কার্ডের কোনো তথ্য পরিবর্তন করে থাকেন তাহলে আপনার ই শ্রম কার্ডে E-KYC করা প্রয়োজন। অনথ্যা আপনাকে ই শ্রম কার্ডে E-KYC করার কোনো প্রয়োজন নেই।

ই শ্রম কার্ডে E-KYC করার পদ্ধতি। E-KYC Process Of e-Shram Card

আপনি কিভাবে বাড়িতে বসে আপনার স্মার্ট ফোন দিয়ে আপনার ই শ্রম কার্ডে E-KYC করতে পাবে তা নিচে কয়েকটি সহজ স্টেপের মাধ্যমে উল্লেখ করা রয়েছে।

স্টেপ ১: আপনি প্রথমে ই শ্রম এর অফিসিয়াল ওয়েবসাইটে যান ( https://eshram.gov.in/ )

স্টেপ ২: প্রথমে ‘Alrady Registered’- তে ক্লিক করুন। তারপর ‘Update E-KYC’ অপশনে ক্লিক করুন।

ই শ্রম কার্ডে E-KYC করার পদ্ধতি স্টেপ 1

স্টেপ ৩: আধার কার্ডের সঙ্গে সংযুক্ত মোবাইল নম্বর টি দিন, ক্যাপচার টি পূরণ করে ‘Send OT’P তে ক্লিক করুন।

ই শ্রম কার্ডে E-KYC করার পদ্ধতি স্টেপ 2

স্টেপ ৪: আপনার মোবাইলে যে OTP টি এসেছে সেটি এন্টার করে ‘Submit’ বটনে ক্লিক করুন।

ই শ্রম কার্ডে E-KYC করার পদ্ধতি স্টেপ 3

স্টেপ ৫: এর পর আপনার আধার নম্বর টি দিয়ে নিচে OTP অপশন টি সিলেক্ট করুন। এরপর নিচের ক্যাপচার টি পূরণ করে ‘Submit’ -তে ক্লিক করুন।

ই শ্রম কার্ডে E-KYC করার পদ্ধতি স্টেপ 4

স্টেপ ৬: এর পর আপনার আধার কার্ড লিঙ্ক করা মোবাইল নম্বরে আর একটা OTP যাবে। ওই OTP টি এন্টার করে ‘Validate’ তে ক্লিক করুন।

ই শ্রম কার্ডে E-KYC করার পদ্ধতি স্টেপ 4

স্টেপ ৭: নিচের চেক বক্সে টিক দিয়ে Update E-KYC information তে ক্লিক করুন।

ই শ্রম কার্ডে E-KYC করার পদ্ধতি স্টেপ 5

স্টেপ ৮: আপনার E-KYC সম্পূর্ণ হয়েছে। এবার Update Profile তে ক্লিক করে প্রোফাইল আপডেট করতে পারেন ও Download UAN Card তে ক্লিক করে ই শ্রম কার্ড ডাউনলোড করতে পারেন।

ই শ্রম কার্ডে E-KYC করার পদ্ধতি স্টেপ 6

ই শ্রম যোগাযোগের ঠিকানা?

রাফি মার্গ, নিউ দিল্লি -110001

ওয়েবসাইট – https://eshram.gov.in/

ইমেল: help-shramsuvidha@gov.in

ফোন নম্বর: 011-23354722 (কাজের দিনে 2:00 PM থেকে 5:00 PM পর্যন্ত)

এই পোস্টটিতে আমরা উল্লেখ করেছি ই শ্রম সম্পর্কিত কিছু তথ্য, ই শ্রম কার্ডে E-KYC করার প্রয়োজনীয়তা, কিভাবে আপনি আপনার ই শ্রম কার্ডে E-KYC করতে পারবেন সেই বিষয়ে। এই রকম গুরুত্বপূর্ণ বিষয়ের সম্পর্কে জানতে আমাদের সোশ্যাল মিডিয়া তে ফলো করুন।

আরো পড়ুনবেকার ভাতা বা যুবশ্রী অনলাইন আবেদন ২০২১ | Yuvashree Prakalpa Online Apply 2021

Leave a Comment