সেরা ১০ টি গ্রামের ব্যবসার আইডিয়া 2022 | Small Village Business Ideas 2022

1 Comment

Photo of author

By Joydeep

Small Village Business Ideas : সহজ ও লাভ জনক কায়েরকটি গ্রামের ব্যাবসার আইডিয়া যা আপনারা চাইলে অল্প পরিমাণ মূলধন দিয়ে শুরু করতে পারেন

শহরের তুলনায় যেমন গ্রামের ব্যাবসার লাভ কম তেমনি শহরের তুলনায় গ্রামের ব্যাবসায় আপনার ক্ষতি হবার সম্ভাবনাও কম। ছোট্ট গ্রাম থেকে যে বড় ব্যাবসা শুরু করা যাবেনা এই ধারণাটি আপনার মন থেকে মুছে ফেলুন। আজকে এই পোস্টটির মধ্যে এমন কিছু গ্রামের ব্যাবসার আইডিয়া দেবো যা হয়তো আগে আপনারা শুনেছেন, কিন্তূ কিভাবে শুরু করবেন এবং ভালো পরিমাণে আয় কবেন এই বিষয়ে বিশেষ কিছু ধারণা নেই। এই পোস্টটিতে শুধু ব্যাবসার আইডিয়াই নয় তারসঙ্গে কিভাবে শুরু করবেন ও কিভাবে আয় করবেন, বিস্তারিত আলোচনা করা হয়েছে।

সেরা ১০ টি গ্রামের ব্যাবসার আইডিয়া | Top 10 Small Village Business Ideas 2022

নিচে যে ১০ টি গ্রামের ব্যাবসার আইডিয়া দেওয়া রয়েছে তারমধ্যে কিছু ব্যাবসায় বেশি মূলধন প্রয়োজন আবার কিছু ব্যাবসা অল্প মূলধন দিয়েই শুরু করা যাবে। প্রথমে সকল ব্যাবসার আইডিয়া গুলি দেখুন, আর ভাবুন আপনার গ্রামে কোন ব্যবসাটি শুরু করে ভালো হবে। কোনো ব্যাবসা শুরু করার আগে সেই ব্যাবসা সম্ভন্ধে ভালো করে জেনে নিবেন।

সেরা ১০ টি গ্রামের ব্যাবসার আইডিয়ার তালিকা –

  1. সবজি ব্যাবসা
  2. ভূসিমাল দোকান
  3. চা দোকান
  4. শস্য পেশায় মিল
  5. মোটর সাইকেল গ্যারেজ
  6. টোটো সার্ভিস
  7. দর্জি দোকান
  8. সেলুন দোকান
  9. পাইকারি
  10. কুটির শিল্প ব্যাবসা

১. সবজি ব্যাবসা (Vegitable Busness)

গ্রামে প্রচুর পরিমাণে সবজি চাষ করা হয়। আপনি সরাসরি চাষীদের কাছ থেকে বেশি পরিমাণে সবজি কিনে বাজারে বিক্রি করতে পারেন বা সবজি দোকান চালাতে পারেন। আপনি দিনে যে পরিমাণ সবজি বিক্রি করতে পারবেন সেই পরিমাণেই চাষীদের কাছ থেকে সবজি কেনার চেষ্টা করবেন। কারন, সবজি সাধারণত 3-4 দিন পর্যন্ত ভালো থাকে এবং তার পর নষ্ট হতে শুরু করে।

এছাও আপনার পুঁজি যদি বেশি থাকে তাহলে আপনি চাষীদের কাছ থেকে সবজি বেশি পরিমাণে কিনে গাড়ি তে করে শহরের চালানি করতে পারেন। এক্ষেত্রে আপনার শহরের পাইকার দের সঙ্গে আগে পরিচয় করতে হবে।

২. ভুসিমাল দোকান (Vusimal shop)

আপনি নিজের গ্রামে ভুসিমাল দোকান খুলতে পারেন। আপনাকে দৈনন্দিন জীবনের সমস্ত প্রয়োজনীয় জিনিস দোকানে রাখতে হবে। যেমন, চাল, ডাল, মলিমসলা, এছাড়াও বাচ্চাদের খাবার, তারসঙ্গে চাইলে বই, খাতা ও সবজিও রাখতে পারেন।

গ্রামের জনসংখ্যা কম হওয়ায় আপনি শুধু একটি নিদির্ষ্ট জিনিসের দোকান করলে লাভবান হতে পারবেন না। সেই জন্য আপনাকে বিভিন্ন ধরনের প্রয়োজনীয় জিনিস নিয়ে দোকান শুরু করতে হবে।

৩. চা দোকান (Tea stall)

চা দোকান ভেবে এটিকে একদম ছোটো নজরে দেখবেন না। চা বিক্রি করেও কোটিপতি হওয়া যায় তা প্রমাণ করে দিয়েছেন MBA Chaiwala. আসল কথা হচ্ছে চা তৈরি করতে খরচ কম হওয়ায় লাভ এর পরিমাণ বেশি হয়। অধিকাংশ মানুষই চা খেতে খুব পছন্দ করে তাই বিক্রি নিয়েও ভাবতে হবে না।

গ্রামে চা দোকান খোলার জন্য প্রথমে একটি ভালো জায়গা বাছুন। গ্রামের মোড়ে চা দোকান করলে আরো ভালো হয়। শুধু মাত্র চা বিক্রি করে উপার্জন কম হচ্ছে মনে হলে চা এর সঙ্গে তেলেভাজা, বিস্কুট, বিড়ি, ঘুটকা ইত্যাদিও দোকানে রাখতে পারেন।

৪. শস্য পেশায় মিল (Match the grain profession)

গ্রামের শস্য উৎপাদন এর পরিমাণ বেশি হওয়ায়। শস্যশস্য পেশায় মিল আপনি যদি শুরু করেন তাহলে নিসন্ধে খুব ভালো চলবে। কিন্তূ এই ব্যাবসা শুরু করার আগে আপনার বেশ ভালো পরিমাণে মূলধন প্রয়োজন হবে। প্রথমে নিজের টাকা ফাঁসিয়ে আপনাকে শস্য পেশায় এর মেশিনে কিনে লাগাতে হবে।

যদি আপনার এলাকায় 2 বার চাষ হয় তাহলে ব্যাবসা চলার সম্ভবনা বেশি হবে। নয়তো এই ব্যাবসা বছরের যে সময় শস্য কেটে বাড়িতে অনে শুধু মাত্র ওই সময় ভালো চলবে।

৫. মোটর সাইকেল গ্যারেজ (Motor Cycle Garage)

গ্রামে এখন যে পরিমাণে মোটর সাইকেলের সংখ্যা বেড়ে চলছে যে এখন গ্রামেও মোটর সাইকেল গ্যারেজ খুব ভালো চলার সম্ভাবনা রয়েছে। এই ব্যাবসায়ী শুরু করার জন্য আপনার মোটর সাইকেল সারাই সম্পর্কে সাধারণ জ্ঞান ও অভিজ্ঞতা থাকা একান্ত প্রয়োজন। গ্রামের খোদ্দার কম থাকায় আপনি প্রথমেই সারাই করার জন্য বেতন দিয়ে লক রাখলে আপনি ব্যাবসায় লাভ দেখতে পাবেন না।

৬. টোটো সার্ভিস (Toto Service)

গ্রামের লোকদের অনেক সময় বাইরে যাবার প্রয়োজন হয়ে থাকে। শহরের মানুষের মত গ্রামের লোকজনও এখন বেশি হেঁটে যাওয়া পছন্দ করে না। এই ব্যাবসা শুরু করার জন্য প্রথমে একটি টোটো কিনতে হবে। আপনি প্রথমে নিজে একটু সার্ভে করে দেখতে পারেন আপনার গ্রামে এই ব্যাবসা চলার সম্ভবনা কতো রয়েছে। তার পর আপনার যদি মনে হয় আপনার গ্রামে টোটো সার্ভিস ভালো চলবে তাহলে আপনি কিস্তিতে টোটো কিনতে পারেন।

এই ব্যাবসা আপনি আপনি প্রতিমাসে সর্বনিন্ম ৬০০০ টাকা থেকে শুরু করে সর্বোচ্চ ১৮০০০ টাকা পর্যন্ত রোজগার করতে পারেন। টোটো সার্ভিস ব্যাবসায় আপনাকে সময় সময় টোটো এর ব্যাটারি বদলাতে হবে। এখানে আপনার ভালো খরচা হয়ে যাবে। ভালো কোয়ালিটির ব্যাটারি হলে সহজেই একবছর চলেযাবে।

৭. দর্জি দোকান (Tailor shop)

ছোট্ট গ্রামেও দর্জির দোকান প্রয়োজন রয়েছে। গ্রামেই ভালো দর্জির দোকান থাকলে গ্রামের কেও বাইরে সেলাই করতে যাবে না। এই ব্যাবসায় আপনার মোটামুটি রোজগার হয়ে যাবে। গ্রামের জনসংখ্যা কম থাকার কারণে আপনি অনেক বেশি লাভ করতে পারবেন না।

আপনি চাইলে আপনার দর্জি দোকানে সেলাই করার সঙ্গে নতুন রেডিমেড জমা কাপড়ও বিক্রি করতে পারেন।

৮. সেলুন দোকান (Salon Shop)

সেলুন দোকান এখন প্রায় সমস্ত গ্রামের পাশেই রয়েছে। আপনার গ্রামটি যদি খুবই ছোট্ট হয়ে থাকে তাহলে সেখানে আপনার এই ব্যাবসা ভালো চলবেনা। আপনি সেখানে আপনার গ্রামের পাসের মোড় বা ছোট্ট বাজারে সেলুন দোকানের ব্যাবসা শুরু করতে পারেন। এই ব্যাবসায় মোটামুটি ভালো পরিমাণেই লাভ হয়েথাকে।

আপনি চাইলে কোনো মহিলাকে রেখে মহিলাদের জন্য পর্লারও শুরু করতে পারেন।

৯. পাইকারি (Wholesale)

পাইকারি মনে হচ্ছে হোলসেল। গ্রামে আপনি গ্রামের জিনিস অনেক পরিমাণে কিনে বাজারে চালানি করে ভালো পরিমাণে লাভ করতে পারেন। গ্রামে চাষ প্রচুর হয় সেজন্য আপনি সবজি চলানি দিতে পারেন। ছাড়াও আপনি সাল পাতা বা কেন্দু পাতা চালনি করতে পারেন। তাছাড়া আপনি গরু ছাগলের পাইকারি করতে পারেন।

এই ব্যাবসায় আপনি ভালো টাকা আয় করতে পারেন কিন্তূ এই ব্যাবসা শুরু করতে আপনার ভালো পরিমাণে মুলধনেরও প্রয়োজন।

১০. কুটির শিল্প (Cottage industry)

গ্রাম থেকে শুরু করতে পারেন এরকম অনেক কুটির শিল্প রয়েছে। এই কাজে আপনার কাজ করার ক্ষমতার উপর নির্ভর করে যে আপনি কতো টাকা আয় করতে পারবেন। আপনি চাইলে কুটির শিল্পে আপনি আপনার পরিবারের সদস্যদের সাহায্য নিতে পারেন।

কিভাবে ব্যাবসা শুরু করবেন (How To Start Busness)

উপরে উল্লেখিত ব্যাবসা গুলি শুরু করার আগে যে সব ব্যাক্তি ওই ব্যাবসায় সফল তাদের সম্পর্কে জানুন। তারা কিভাবে সফল হয়েছে এবং আপনার ওই ব্যাবসায় সফল হবার সম্ভবনা কতটা রয়েছে দেখুন। যেকোনো ব্যাবসা শুরু করার আগে সেই ব্যাবসার লাভের দিক এবং ক্ষতির দিকগুলি ভালো করে দেখুন।

আরো পড়ুন ~

Small Village Business Ideas 2022 – FAQ

গ্রামে কি ধরনের ব্যাবসা করা যায় ?

গ্রামে উৎপাদন, দোকান এবং পাইকারি ধরেনের ব্যাবসা করা যাবে। সেরা ১০ টি গ্রামের ব্যবসার আইডিয়া উপরে উল্লেখ করা হয়েছে।

গ্রামে ব্যাবসা শুরু করার আগে কি করা দরকার?

গ্রামে কোনো ব্যাবসা শুরু করার আগে আপনার গ্রামে ওই ব্যাবসা চলবে কি না বুঝে নেবেন। তাছাড়া ওই ব্যাবসার লাভ এর দিক এবং ক্ষতির দিক গুলি জেনে নিবেন।

গ্রামের সেরা ১০ টি ব্যাবসার আইডিয়া কি?

সবজি ব্যাবসা, ভূসিমাল দোকান, চা দোকান, শস্য পেশায় মিল, মোটর সাইকেল গ্যারেজ, টোটো সার্ভিস, দর্জি দোকান, সেলুন দোকান, পাইকারি, কুটির শিল্প ইত্যাদি ব্যাবসা গ্রামে শুরু করা যাবে।

Leave a comment