SVMCM Scholarship Payment Best Update: সর্বনাশ, পেয়ে গিয়েছেন 12,000 টাকা! কিন্তু সমস্যা তো অন্যদিকে, এখনই চেক করুন

Photo of author

By Joydeep

SVMCM Scholarship Payment: অবশেষে খুশির খবর দিল বিকাশ ভবন। ইতিমধ্যেই স্বামী বিবেকানন্দ স্কলারশিপের টাকা পাঠানো হয়েছে শিক্ষার্থীদের একাউন্টে। কলকাতা ট্রেজারি থেকে শিক্ষার্থীদের মোবাইল ফোনে এসএমএস এসেছে এমন বিষয়ে। কিন্তু অনেকেই রয়েছেন যাঁদের একাউন্টে টাকা ঢোকার মেসেজ এলেও ওয়েবসাইটের স্ট্যাটাস আপডেট হয়নি। তাই আজ আপনারও যদি টাকা এসে থাকে, বা আপনার স্ট্যাটাস এখনও পরিবর্তন না হয়, তাহলে প্রত্যেকের আজকের আপডেট খুবই গুরুত্বপূর্ণ এবং মনোযোগ সহকারে পড়তে হবে (SVMCM Scholarship Payment)।

SVMCM Scholarship Payment Overview

বৃত্তি প্রকল্পের নামস্বামী বিবেকানন্দ মেরিট-কাম-মিনস স্কলারশিপ স্কিম 2023
রাজ্যপশ্চিমবঙ্গ
যোগ্যতাএকাদশ এবং দ্বাদশ শ্রেণি/স্নাতক/স্নাতকোত্তর ছাত্ররা নিয়মিত মোডে অধ্যয়ন করছে
চালু করেছেপশ্চিমবঙ্গ সরকার
বৃত্তির ধরনমেধা
সরকারী ওয়েবসাইটhttps://svmcm.wbhed.gov.in/

একাউন্টে টাকা ঢুকলে মেসেজটি এইরূপ (SVMCM Scholarship Payment)

Your claim of Rs. 12000 (Scholarships and Stipends) is released from Calcutta PAO-III Treasury and is scheduled to be credited to Bank A/ C No. XXXXXXXXX on 10/01/2024.WBIFMS

এই টাকা পাওয়ার ক্ষেত্রে সমস্যাটা কোথায়!

বিকাশ ভবনের নতুন নিয়ম অনুসারে, আগের মতো টাকা পেয়ে যত্রতত্র ব্যবহার করলে চলবে না। বৃত্তির অর্থ শুধুমাত্র শিক্ষার কাজেই ব্যয় করা যাবে। এর জন্য, ব্যবহার সনদ এবং স্বাক্ষর জামানতও চালু করা হয়েছে। তাই শিক্ষার্থীদের বৃত্তির অর্থ শুধুমাত্র টিউশন ফেস, বই এবং হোস্টেলের মতো উপযুক্ত শিক্ষাক্ষেত্রেই ব্যয় করতে বলা হয়।

 পাবেন 75,000 টাকা পর্যন্ত, স্কুলের পড়ুয়াদের জন্য বড় সুযোগ!

আবার অনেকেই রয়েছেন যারা এসএমএস পেয়েও টাকা পাননি তাঁরা এক্ষেত্রে চিন্তায় রয়েছেন। কী করবেন, জানেন?

মোবাইল ফোনে SMS পাওয়ার পর ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্টে টাকা ঢুকতে অন্ততপক্ষে 48 ঘণ্টা পর্যন্ত সময় লাগতে পারে, যদিও প্রায় বেশিরভাগ সময় টাকা সঙ্গে সঙ্গে ব্যাঙ্কে জমা হয়। আর যদি সন্দেহ হয় কেন টাকা ঢুকছে না। জালিয়াতির যুগে আপনার একাউন্টের সঙ্গে কোনো ফ্রডেন্ট কার্যকলাপ হয়েছে কিনা। তা জানতে পড়ুয়ারা নিজেদের পাসবুক চেক করার জন্য ব্যাঙ্কে যেতে পারেন এবং সেখানে গিয়ে দেখতে পারেন আপনার ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্ট সক্রিয় রয়েছে কিনা৷ বা কোনো জালিয়াতি হয়েছে কিনা (SVMCM Scholarship Payment)।

পরবর্তী তহবিলের টাকা কখন মুক্তি পাবে? (SVMCM নেক্সট ফান্ড)

যেহেতু বিকাশ ভবন সবেমাত্র বিতরণ শুরু করেছে এবং এই প্রক্রিয়া দুই থেকে তিন দিন ব্যাপী চলবে। তাই পরবর্তী তহবিল জানুয়ারির শেষে বা ফেব্রুয়ারির প্রথম সপ্তাহে প্রকাশ করা হবে বলে আশা করা হচ্ছে।

স্বামী বিবেকানন্দ স্কলারশিপের বিষয়ে আরও বিস্তারিত জানতে স্বামী বিবেকানন্দ বিকাশ ভবন বৃত্তির অফিসিয়াল ওয়েবসাইট থেকে সমস্ত বিস্তারিত জেনে নিতে হবে আপনাকেই।

ঠিক কী নিয়মে স্বামী বিবেকানন্দ স্কলারশিপের জন্য নথিপত্র আপডেট করতে হয়?

  • আয়ের শংসাপত্র, ভর্তির রশিদ (নির্দিষ্ট বিন্যাসে)
  • গত বোর্ড/কাউন্সিল/বিশ্ববিদ্যালয়/কলেজ পরীক্ষার মার্কশিট (উভয় দিক)
  • অ্যাকাউন্ট নম্বর এবং IFSC সম্বলিত প্রথম পৃষ্ঠা সহ ব্যাঙ্ক পাসবুকের স্ক্যান কপি
  • সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ দ্বারা জারি করা আবাসিক শংসাপত্র যেমন আধার কার্ড/রেশন কার্ড/ভোটার আইডি কার্ড
  • ছবি এবং স্বাক্ষরের একটি স্ক্যান কপি আপলোড করার সময়, আবেদনকারীদের নীচে উল্লিখিত ফাইল বিন্যাস এবং ফাইলের আকার বজায় রাখার পরামর্শ দেওয়া হয়। (ছবি এবং স্বাক্ষর বিন্যাস JPG/JPEG এবং আকার যথাক্রমে 20KB-50KB এবং 10KB-20KB এর মধ্যে হওয়া উচিত।)
  • আবেদনপত্র সফলভাবে জমা দেওয়ার পর, ‘স্ক্যান করা সাপোর্টিং ডকুমেন্ট আপলোড’ ফর্ম প্রদর্শিত হবে আবেদনকারীদের ফর্মে উল্লিখিত সমস্ত প্রয়োজনীয় নথি আপলোড করার পরামর্শ দেওয়া হচ্ছে।
  • আপলোড করার সময়, আবেদনকারীদের অবশ্যই ফাইলের বিন্যাস এবং ফাইলের আকার বজায় রাখতে হবে, যেমনটি নীচে উল্লেখ করা হয়েছে। (ফাইলগুলি PDF ফরম্যাটে হওয়া উচিত এবং আকার 400KB এর বেশি হওয়া উচিত নয়)।